1. admin@pasttime.online : admin :
সোমবার, ২৭ জুন ২০২২, ১২:১৩ অপরাহ্ন

স্ত্রীর রক্তাক্ত লাশ ও স্বামীর ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার।

Reporter Name
  • প্রকাশের সময় : মঙ্গলবার, ১২ অক্টোবর, ২০২১
  • ৩২৯ বার এই সংবাদটি পড়া হয়েছে

নিজস্ব প্রতিবেদক :
নেত্রকোনা জেলার মদন উপজেলার ৬ নং তিয়শ্রী ইউনিয়নের বালালী গ্রামের নান্দুমির এর নিজ ঘর থেকে স্ত্রী মেরাজু ( ৪৬) রক্তাক্ত লাশ ও স্বামী নান্দুমীরের ফাঁসিতে ঝুলানো অবস্থায় লাশ উদ্ধার করে ১২ অক্টোবর রোজ মঙ্গলবার মদন থানা পুলিশ ও ময়মনসিংহের ক্রাইমসিন সি আইডি বিভাগ ।

স্বামী-স্ত্রী দুজনের লাশ ময়না তদন্তের জন্য নেত্রকোনা মর্গে পাঠানো হয়েছে। এ ঘটনাটি ঘটেছে উপজেলার বালালী গ্রামে।

জানা যায়, মৃত নান্দুমির ১১বছর ধরে এই গ্রামে বসতবাড়ি করে আছে । নান্দুমির( ৫৫) ৭নং নায়েকপুর ইউনিয়নের আলমশ্রী গ্রামের মৃত সামছু মিয়ার ছেলে।

সকাল আনুমানিক সময় ৬ ঘটিকা নান্দুমির এর বাড়িতে ছাগল বাওয়ানোর জন্য ছাগল নিয়ে আসে একই গ্রামের সুনই মিয়া( ৪৫) নান্দুমির বাড়িতে, ডাকাডাকি করে কোনো নড়া শব্দ না পাওয়া দরজায় ধাক্কা দিলে, দরোজা খুলে যায় , এমন সময় দেখতে পান সুনই মিয়া ।

নান্দুমির ফাঁসিতে ঝুলে আছে, তার স্ত্রী রক্তাক্ত অবস্থায় মাটিতে পড়ে আছে , তার ডাক চিৎকার শুনে প্রতিবেশীরা এসে দেখে থানা পুলিশকে খবর দেন ।
মা-বাবার মৃত্যুর ঘটনা রেখে যাওয়া সন্তান অপূর্ব (৮) ও লাবনী আক্তার (৬) বলেন ,রাতের খাবারের শেষে মা-বাবা মাটিতে শুয়ে যায় আমরা দুই ভাইবোন খাটে শুয়ে ঘুমিয়ে যাই ।সকালে লোকজনের চিৎকার শুনে ঘুম থেকে উঠে দেখি মা-বাবা দুজনেই মরা লাশ ।

এবিষয়ে জানতে চাইলে তিয়শ্রী ইউনিয়নের ইউপি চেয়ারম্যান ফখরুদ্দিন আহমেদ বলেন, লোকে মুখে শুনে ঘটনাটি দেখতে এলাম ঘটনাটি খুবই দুঃখজনক ঘটনা ঘটেছে ।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে মদন থানা অফিসার ইনচার্জ ফেরদৌস আলম বলেন ,লাশ ময়নাতদন্তের জন্য পাঠানো হয়েছে, এলাকায় পুলিশ মোতায়েন রয়েছে, এলাকায় আতঙ্ক বিরাজ করছে । তদন্ত সাপেক্ষে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে ।

এ ব্যাপারে জানতে চাইলে অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মনির হোসেন বলেন , সংবাদ পেয়ে ঘটনাস্থলে থানা পুলিশ টিম এসেছে , অন্যান্য তদন্তকারী সংস্থা পিবিআই ও সিআইডি কেউ জানানো হয়েছে , তদন্ত অব্যাহত রয়েছে । দ্রুতগতিতে ঘটনার রহস্য উদ্ঘাটিত হবে।

এই সংবাদটি শেয়ার করুনঃ

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই ক্যাটাগরির আরো সংবাদ
© All rights reserved © 2020
ডিজাইন ও কারিগরি সহযোগিতায়: FT It